ব্লগ থেকে আয় করার পদ্ধতি কি?

ব্লগ থেকে কয়েকটি পদ্ধতিতে আপনি আয় করতে পারেন। বাংলায় লিখেও সেটি সম্ভব তবে ইংরেজীতে লিখলে বৈশ্বিক ভিজিটর পাওয়া যায় এবং আয়ের পরিধিটাও বেড়ে যায়। একটি কথা মাথায় রাখবেন- ব্লগের ভিজিটর না থাকলে কোন পদ্ধতিতেই কাজ হবে না। আর, আপনার লেখায় লোকের উপকার না হলে ব্লগের ভিজিটরও পাবেন না।
এবারে আয়ের পদ্ধতিগুলো নিয়ে বলি-
  1. এড দেখিয়ে: আগে যখন এডসেন্স ছিল না, আমি তখন adhitz এর এড দেখাতাম। এখন সার্চের ভিজিটর থাকলে এবং অন্যায় কিছু প্রচার না করলে সহজেই এডসেন্স এর এপ্রুভাল পেয়ে যেতে পারেন। আয় করা টাকা ব্যাংক বা, রকেট একাউন্টের মাধ্যমে তোলা যায়।
  2. এফিলিয়েট মার্কেটিং করে: বাংলাদেশেও অনেক ওয়েবসাইট আছে যারা এফিলিয়েট মার্কেটিং এর সুযোগ দেয়। আর, এমাজন তো আছেই বিশ্বব্যাপী। এফিলিয়েট ব্যাপারটা হচ্ছে অন্যের প্রডাক্ট বিক্রি করে কিছু কমিশন পাওয়া। আপনার ব্লগের মাধ্যমে সেটা হতে পারে।
  3. নিজের প্রডাক্ট বিক্রি করে: আপনার নিজের কোন অনলাইন শপের জিনিস বা, অফলাইনে একটি দোকান/রেস্টুরেন্ট থাকলেও তার প্রচার ব্লগের মাধ্যমে করা যায়।
  4. ব্লগের মেম্বারশিপ বিক্রি করে: আপনার লেখা যদি এতটাই দরকারি হয় যে লোকে সেটি টাকা দিয়ে হলেও পড়তে চাইবে। তাহলে অল্প কিছু টাকার বিনিময়ে ব্লগের মেম্বারশিপ দিন যারা আপনার লেখা পুরোটা পড়তে পারবে।
  5. নিজের ব্রান্ডিং করে: কোন বিজ্ঞাপন, প্রচার, বিক্রি ছাড়াই শুধু নিজের জনপ্রিয়তা বাড়িয়ে নিতে পারেন। সেটি আপনাকে অন্যভাবে ফল দেবে। হয়তো মোটিভেশনাল স্পিকার হিসেবে আপনাকে টাকা দিয়ে নিয়ে যাবে শুধু কথা শোনার জন্য।
আরো পড়ুন-
একটি কথা মনে রাখবেন, ব্লগের আয় পুরোপুরি নির্ভর করে জনপ্রিয়তার উপর। আর, মাণহীন লেখা দিয়ে জনপ্রিয়তা পাওয়া যায় না। লিখে আয় করবো- এরকম ধারণা যাদের তারা কেউ সাধারণত জনপ্রিয় হয় না। কোন কিছু করতে বা, জানতে ভাল লাগে এরকম কেউ সেই বিষয় নিয়ে লিখলে জনপ্রিয় হতে পারেন(SEO বলেন আর যাই বলেন, এটি শুধু লেখাটাকে পৌছে দেয়- কাজে না লাগলে কেউ কোন লেখাই পড়ে না)।

2 thoughts on “ব্লগ থেকে আয় করার পদ্ধতি কি?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *